কড়াই চিকেন

Spread the love

hungrybong.com এ সবাইকে স্বাগত। আমাদের আজকের রেসিপি কড়াই চিকেন

আলাপ আলোচনাঃ-

এই পদটি পেশোয়ার শহরের রান্না। সাধারণত আমরা জানি পদটি কড়াইতে তৈরি করা হয় তাই সেখান থেকেই এই নামের উৎপত্তি। তবে মজার বিষয় হল পেশোয়ার শহরে এই রান্নাটি হয় বালতি তেহ, বালতিকেই কড়াইয়ের মত কাজে লাগানো হয়। দেশ ভাগের পূর্বে ১৯২০ সালে ব্রিটিশ শাসনকালে করাচী(বর্তমানে পাকিস্তানের অন্তর্গত) শহরে এই রান্নার উৎপত্তি হয়। পরবর্তীতে দুই দেশে বিভক্ত হওয়ার পর রান্নায় বিভিন্নতা দেখা যায় যেমন ভারতে এই রান্নায় পেঁয়াজ ও ক্যাপসিকাম ব্যাবহার করা হয় অপরদিকে পাকিস্তানে এই রান্নায় পেঁয়াজ ও ক্যাপসিকাম ব্যাবহারের কোনো অস্তিত্ব নেই; তবে করাচী পদ্ধতিতে কম মশলা ব্যাবহার করা হয় এবং পেশোয়ার পদ্ধতিতে বিভিন্ন মশলার প্রয়োগ আছে। তোহ এই নিয়েই আজকের রান্না পেশোয়ার পদ্ধতিতে কড়াই চিকেন

কড়াই চিকেন

উপকরণঃ-

সাদাতেল (আধা কাপ),
চিকেন (১ কিলো),

হলুদ(পরিমাণ মত),

লবণ(স্বাদ অনুসারে),

চিনি(স্বাদ অনুসারে),

টক দই (দেড় কাপ),

টমেটো (আধা কিলো),

কাঁচালঙ্কা (৮-৯ টা),

আদা কুঁচি (২ টেবিল চামচ),

রসুন কুঁচি (২ টেবিল চামচ),

জিরের গুঁড়ো (১ চা চামচ),

ধনের গুঁড়ো (১ টেবিল চামচ),

কাশ্মীরি লঙ্কার গুঁড়ো (১ চা চামচ),  

চাটমশলা (১ চা চামচ),

গরমমশলার গুঁড়ো (১ চা চামচ) ,

গোলমরিচের গুঁড়ো (১ চা চামচ) ,

ধনেপাতা কুঁচি,

কস্তূরী মেথি,

জুলিয়ান করে কাটা আদা (লম্বা লম্বা কুঁচি করে কাটা),

[ধনে,জিরে,শুকনোলঙ্কা] একসাথে কড়াইতে ভেঁজে হাফ গুঁড়ো করে নিতে হবে (২ টেবিল  চামচ)।

পদ্ধতিঃ-

প্রথমে কড়াইটি হালকা গরম হয়ে এলে এর মধ্যে হাফ কাপ সাদা তেল দিয়ে তার মধ্যে চিকেনের পিসগুলো দিয়ে জোর আঁচে নাড়তে হবে।

কড়াইতে চিকেন দেওয়ার পর

এরপর চিকেন এর কালার চেঞ্জ হতে থাকলে তাতে ফ্যাটানো টক দই চার-পাঁচ টেবিল চামচ দিয়ে কষতে দিতে হবে কিছুক্ষণ পর দইটা টেনে নিয়ে তেল ছাড়তে শুরু করলে তখন স্বাদ আনুসারে লবণ, খোসা ছাড়িয়ে রাখা টমেটোগুলো(আগে থেকে টমেটো গুলো হাফ সিদ্ধ করে খোসা ছাড়িয়ে রেখে দিতে হবে) ডুমো ডুমো করে কেটে দিয়ে দিতে হবে সাথে ২-৩ টে কাঁচালঙ্কা কুচি করে কেটে দিয়ে নেড়ে দিতে হবে এবং পাঁচ-দশ মিনিট মতো ঢেকে রেখে দিতে হবে (এই সময় গ্যাসের আঁচ মিডিয়াম থাকবে)।

দই দেওয়ার পর

পাঁচ-দশ মিনিট পর ঢাকনা খুলে তার মধ্যে একে একে পরিমাণ মত হলুদ, আদা কুঁচি, রসুন কুঁচি, জিরের গুঁড়ো, কাশ্মীরি লঙ্কাগুঁড়ো, শুকনো লঙ্কা গুঁড়ো, ধনের গুঁড়ো, চাট মশলা, গরম মশলা, গোলমরিচের গুঁড়ো আর ভেজে নেওয়া মশলা গুঁড়োগুলো, অল্প পরিমাণ চিনি,এবং তার সাথে আর একবার তিন-চার টেবিল চামচ টক দই দিয়ে কষাতে হবে আরো দশ-পনেরো মিনিট মত।

মশলা কষানোর সময়

এরপর উপর দিয়ে ৫-৬ টে গোটা কাঁচালঙ্কা চিঁড়ে, ধনে পাতা, কস্তুরী মেথি ও কেটে রাখা জুলিয়ান আদা দিয়ে একটু নেড়েচেড়ে ঢেকে রেখে দিতে হবে কিছুক্ষণ। এরপর ঢাকনা খুললেই তৈরি কড়াই চিকেন।

কড়াই থেকে নামানোর আগে

এই পদটি পরোটা, রুটি অথবা ফ্রায়েডরাইস এর সাথে ভালো মানায়।

পরিবেশনের সময় উপর দিয়ে জুলিয়ান আদা কুঁচি এবং ধনেপাতা কুঁচি দিয়ে সাজালে পদটি আরো আকর্ষণীয় হবে।

বিঃদ্রঃ-

১. আদা কুঁচি ও রসুন কুঁচির পরিবর্তে আদা বাটা ও রসুন বাটাও দেওয়া যেতে পারে।

২. সাদা তেলের পরিবর্তে বাটার অথবা ঘি ব্যাবহার করা যেতে পারে।

৩. পদটি বেশি ঘন মনে হলে সেক্ষেত্রে অল্প পরিমাণ জল দেওয়া যেতে পারে, অন্যথা এই রান্নায় কোনো প্রকার জলের প্রয়োগ নেই।

তৈরি আজকের রেসিপি কড়াই চিকেন

সবশেষে এই সুস্বাদু রান্নাটি খাওয়ার পর একটাই কথা বলতে বাধ্য হবেন যে রান্নাটি অসাধারণ এবং অনবদ্য।

উৎপত্তি সম্পর্কে তথ্যসূত্র জ্ঞাপন করেছি- CA Arnab Basu Mullick এর লেখা থেকে।

এইরকম চমকদারও রেসিপি পেতে চলে আসুন আমাদের পেজে। ধন্যবাদ

100% LikesVS
0% Dislikes

30 thoughts on “কড়াই চিকেন”

  1. অসাধারণ রেসিপি….. জীভ এ জল এসে গেলো……. অবশ্যই বাড়িতে বানিয়ে খেয়ে দেখবো…… ও সবাইকে খাওয়াব……

    Reply
  2. দেখেই মনে হচ্ছে,খেতে দারুন হবে এই
    রেসিপিটা। খুব তাড়াতাড়ি বাড়ীতে করে খেতে হবে। আরো এরকম রেসিপির অপেক্ষায় রইলাম।

    Reply
  3. কবে খাওয়াবি ?? 😍😍😍
    দেখেই জিভে জল আসছে তো !😋

    Reply
  4. দেখতে এত সুন্দর লাগছে খেতে আশা করি আরো ভালো লাগবে 😋

    Reply
  5. দেখতে দারুন লাগছে আর খেতে আর ভালো লাগবে মনে হচ্ছে।

    Reply

Leave a Comment

error: Content is protected !!